ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
রামকান্তুপুর ইউয়িনের মোহনশাহ’র বটতলার গোল চত্বর এর উদ্বোধন রাজবাড়ীতে মাদকদ্রব্যর অপব্যবহার ও পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস ও আলোচনা সভা রাজবাড়ীতে ডিবি পুলিশের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী মোজাম্মেল আটক রাজবাড়ী শহর রক্ষা প্রকল্প (ফেইজ-২) বাস্তবায়ন বিষয়ক সাধারণ সমন্বয় সভা সন্ধ্যার মধ্যে বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান করতে হবে-প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী রামকান্তপুর ইউনিয়ন ও পৌর নবাসীকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সোহেল রানা। ঈদুল ফিতর’ উপলক্ষে চন্দনী ইউনিয়বাসীর সুস্বাস্থ্য, সুখ-সমৃদ্ধি ও অনাবিল আনন্দ কামনা করে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন-শাহিনুর পৌরবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন যুবলীগ নেতা মীর সজল জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের মানুষকেঈদের শুভেচ্ছা কাজী ইরাদত আলীর সদর উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে ছিন্নমূল মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ

সাধারণ পোশাকে ফুটে উঠে পুরুষের ব্যক্তিত্ব

কাজী তানভীর মাহমুদ,রাজবাড়ী টুডে.কম: পোশাক মানুষের বাহ্যিক সৌন্দর্য রক্ষা করে। এটি মানুষের ব্যাক্তিত্ত্বেরও বহিঃপ্রকাশ ঘটায়। একটি সুন্দর পোশাক সবার মাঝে একজন ব্যক্তিকে আকর্ষনীয় করে তুলতে পারে। তবে সুন্দর পোশাক মানেই যে তা অনেক দামী হতে হবে এমনটি কিন্তু নয়।দাম যাই হোক না কেন খুব সাধারণ পোশাকেও নিজেকে সুন্দর করা যায়।নিজেকে উপস্থাপন করা যায় ভিন্ন ভাবে। বিশেষ করে ছেলেদের কে সাধারণ পোশাকেই বেশী সুন্দর ও স্মার্ট দেখায়।
আমদের দেশের ছেলেদের ‘শার্ট, সাধারণ প্যান্ট, জিন্স, পাঞ্জাবী, ও টি-শার্ট’ এই পোশাক গুলোতেই বেশি সুন্দর দেখায়। আমি জানি আপনারা বলবেন, ‘ছেলেরা এর বাইরে কোনো পোশাক পরে কী’। আমিও বলবো ‘না’ পরে না। কিন্তু এগুলো পোশাকের মধ্যেও এমন কিছু স্টাইল আছে যা আমাদের দেশের ছেলদের একদমই মানায় না। যেমণ, পুরুষরা সাধারনত সার্ট প্যান্ট বা টি-সার্ট প্যান্ট বপরে। আবার সার্ট, টি-সার্ট বা প্যান্ট এর দুটি ধরন রয়েছে যেমন ,একটি সাধারণ অন্যটি ছেড়া, বা লম্বা রশি ঝোলানো উজ্জল রঙের কাপড়ের তৈরী পোশাক।
যারা ছেড়া স্টাইলের সার্ট, টি-সার্ট ও প্যান্ট পরে তারা সাথে গলায় চেইন পরে,হাতে বিভিন্ন রকমের বালা বা রশি জাতীয় কিছু লাগায়, আবার অনেকে কিছু লাগায় না। মানুষের দৃষ্টি তাদের সার্ট প্যান্টের ছেড়া বা রশির দিকে চলে যায় ফলে ব্যাক্তিত্ব নষ্ট হয়ে যায়। এমনকি তাদের এই পোশাক পরে সমাজের সকল জায়গায় যাওয়া ও সম্ভব হয় না।মাঝে মাঝে তারা হয়ে পরে হাসির পাত্র।
এবার প্রশ্ন আসতে পারে কোন ধরনের পোশাকে ছেলেদের বেশী সুন্দর ও স্মার্ট দেখায়। চলুন তবে জেনে নেই:
১। পোশাক-আশাক দামি নয় পরিপাটি হওয়া প্রয়োজন। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আপনি যে কোনো ধরনের পোশাক পড়তে পারেন। তবে যে পোশাকটি আপনি পরছেন তা হওয়া চাই পরিচ্ছন্ন ও মার্জিত।
২। ঋতু ভেদে পোশাকের পরিবর্তন আনতে পারেন। খুব গরমে পড়তে পারেন হাফ হাতা টি-শার্ট বা শার্ট। সাথে জিন্স। তবে খেয়াল রাখবেন সেগুলো যেনো ছেড়া ফাটা না হয়। অন্যথায় মানুষের কাছে আপনার ব্যাক্তিত্ব নষ্ট হয়ে যেতে পারে।
৩। গরমে সুতি হাফ হাতা শার্ট পরলে খেয়াল রাখবেন তা যেনো খুব গাঢ় রঙের না হয়।
৪। শীতে ফুলহাতা শার্ট বা টিশাট।ফুলহাতা শার্ট এর সাথে সাধারণ প্যান্টই বেশি মানানসই। শীতে জ্যাকেট কেনার সময়ও নিজের ব্যাক্তিত্বের সাথে যায় এমন জ্যকেট বা শীতের পোশাক কিনুন।
৫। যে কোনো উতসবে পাঞ্জবি পরুন। এটি আমাদের দেশের ছেলেদের জাতীয় পোশাক। পাঞ্জাবী আপনার ব্যাক্তিত্বকে আরও বেশি উন্নত করবে। পাঞ্জাবির সাথে পড়তে পারেন জিনস, সাধারণ পাজামা, ধুপিয়ান পাজামা বা চুরিদার। ধুপিয়ানের সাথে শর্ট পাঞ্জাবি পড়তে পারেন অন্যথায় খুব বেশি শর্ট পাঞ্জাবি না পরাই ভালো।

Tag :

আপনার মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষণ করুন

লেখক তথ্য সম্পর্কে

Meraj Gazi

জনপ্রিয় পোস্ট

রামকান্তুপুর ইউয়িনের মোহনশাহ’র বটতলার গোল চত্বর এর উদ্বোধন

সাধারণ পোশাকে ফুটে উঠে পুরুষের ব্যক্তিত্ব

আপডেটের সময় : ০৫:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৬

কাজী তানভীর মাহমুদ,রাজবাড়ী টুডে.কম: পোশাক মানুষের বাহ্যিক সৌন্দর্য রক্ষা করে। এটি মানুষের ব্যাক্তিত্ত্বেরও বহিঃপ্রকাশ ঘটায়। একটি সুন্দর পোশাক সবার মাঝে একজন ব্যক্তিকে আকর্ষনীয় করে তুলতে পারে। তবে সুন্দর পোশাক মানেই যে তা অনেক দামী হতে হবে এমনটি কিন্তু নয়।দাম যাই হোক না কেন খুব সাধারণ পোশাকেও নিজেকে সুন্দর করা যায়।নিজেকে উপস্থাপন করা যায় ভিন্ন ভাবে। বিশেষ করে ছেলেদের কে সাধারণ পোশাকেই বেশী সুন্দর ও স্মার্ট দেখায়।
আমদের দেশের ছেলেদের ‘শার্ট, সাধারণ প্যান্ট, জিন্স, পাঞ্জাবী, ও টি-শার্ট’ এই পোশাক গুলোতেই বেশি সুন্দর দেখায়। আমি জানি আপনারা বলবেন, ‘ছেলেরা এর বাইরে কোনো পোশাক পরে কী’। আমিও বলবো ‘না’ পরে না। কিন্তু এগুলো পোশাকের মধ্যেও এমন কিছু স্টাইল আছে যা আমাদের দেশের ছেলদের একদমই মানায় না। যেমণ, পুরুষরা সাধারনত সার্ট প্যান্ট বা টি-সার্ট প্যান্ট বপরে। আবার সার্ট, টি-সার্ট বা প্যান্ট এর দুটি ধরন রয়েছে যেমন ,একটি সাধারণ অন্যটি ছেড়া, বা লম্বা রশি ঝোলানো উজ্জল রঙের কাপড়ের তৈরী পোশাক।
যারা ছেড়া স্টাইলের সার্ট, টি-সার্ট ও প্যান্ট পরে তারা সাথে গলায় চেইন পরে,হাতে বিভিন্ন রকমের বালা বা রশি জাতীয় কিছু লাগায়, আবার অনেকে কিছু লাগায় না। মানুষের দৃষ্টি তাদের সার্ট প্যান্টের ছেড়া বা রশির দিকে চলে যায় ফলে ব্যাক্তিত্ব নষ্ট হয়ে যায়। এমনকি তাদের এই পোশাক পরে সমাজের সকল জায়গায় যাওয়া ও সম্ভব হয় না।মাঝে মাঝে তারা হয়ে পরে হাসির পাত্র।
এবার প্রশ্ন আসতে পারে কোন ধরনের পোশাকে ছেলেদের বেশী সুন্দর ও স্মার্ট দেখায়। চলুন তবে জেনে নেই:
১। পোশাক-আশাক দামি নয় পরিপাটি হওয়া প্রয়োজন। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আপনি যে কোনো ধরনের পোশাক পড়তে পারেন। তবে যে পোশাকটি আপনি পরছেন তা হওয়া চাই পরিচ্ছন্ন ও মার্জিত।
২। ঋতু ভেদে পোশাকের পরিবর্তন আনতে পারেন। খুব গরমে পড়তে পারেন হাফ হাতা টি-শার্ট বা শার্ট। সাথে জিন্স। তবে খেয়াল রাখবেন সেগুলো যেনো ছেড়া ফাটা না হয়। অন্যথায় মানুষের কাছে আপনার ব্যাক্তিত্ব নষ্ট হয়ে যেতে পারে।
৩। গরমে সুতি হাফ হাতা শার্ট পরলে খেয়াল রাখবেন তা যেনো খুব গাঢ় রঙের না হয়।
৪। শীতে ফুলহাতা শার্ট বা টিশাট।ফুলহাতা শার্ট এর সাথে সাধারণ প্যান্টই বেশি মানানসই। শীতে জ্যাকেট কেনার সময়ও নিজের ব্যাক্তিত্বের সাথে যায় এমন জ্যকেট বা শীতের পোশাক কিনুন।
৫। যে কোনো উতসবে পাঞ্জবি পরুন। এটি আমাদের দেশের ছেলেদের জাতীয় পোশাক। পাঞ্জাবী আপনার ব্যাক্তিত্বকে আরও বেশি উন্নত করবে। পাঞ্জাবির সাথে পড়তে পারেন জিনস, সাধারণ পাজামা, ধুপিয়ান পাজামা বা চুরিদার। ধুপিয়ানের সাথে শর্ট পাঞ্জাবি পড়তে পারেন অন্যথায় খুব বেশি শর্ট পাঞ্জাবি না পরাই ভালো।